হ্যাকার হতে কি কি প্রয়োজন?

এই প্রশ্নের উত্তরে অনেকে অনেক কিছু বলবে জানি। কেউ বলবে ভালো মানের এন্ড্রোয়েড, কেউ বলবে ল্যাপটপ, কেউ বলবে কালি লিনাক্স ইত্যাদি। কিন্তু আমি বলি, একজন হ্যাকার হতে হলে তার সর্ব প্রথম থাকতে হবে তীক্ষ্ণ চিন্তাশক্তি এবং ধৈর্য। বর্তমান যুগে এন্ড্রোয়েড কিংবা কম্পিউটার অনেকেরই আছে। মোবাইল ফোন তো হাতে হাতে। অনেকে মনে করেন এন্ড্রোয়েড ফোন দিয়েই হ্যাকিং চর্চা করা যায়। এটা সত্যি হলেও পুরোপুরি সত্যি নয়। কারন, হ্যাকিং এর জন্য প্রধানত আমাদেরকে কালি লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করতে হবে। বর্তমান সময়ে লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম এন্ড্রোয়েড ফোনে ব্যবহার করা গেলেও, তা দিয়ে হ্যাকিং এর মত কাজ করা যায় না। কাজেই আপনার একটি নূন্যতম ৪ জিবি র‍্যামের কম্পিউটার এবং তাতে ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে। আর কিছুই লাগবে না।

আমরা কম্পিউটারে সাধারণত দৈনন্দিন প্রয়োজনে ইউন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করে থাকি। তাছাড়া লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম অনেকটা হিজিবিজি রকমের মত সিস্টেম, যা দেখলেই মাথা ঘোরায়। এটা হয়তো প্রোগ্রামার কিংবা বড় বড় হ্যাকাররাই ব্যবহার করে থাকে মনে করে, আমরা এই অপারেটিং সিস্টেম থেকে নিজেকে নিরাপদ দূরত্বে সরিয়ে রাখি। বাস্তবে কালি লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেমে যে মজা, তা একবার কোন ইউজার পেলে, ইউন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করতেই ভুলে যাবেন।

এবার… শুরু করা যাক…