কালি লিনাক্স কি এবং কেন ব্যবহার করবো?

 

Kali Linux একটি ওপেন সোর্স অপারেটিং সিটেম। এটি তৈরি করা হয়েছে মূলত হ্যাকিং এর জন্য। আপনি চাইলে প্রোগ্রামিং এর মাধ্যমে এর পুরো থিমটাই চেঞ্জ করতে পারবেন। চাইলে কোন একটি টুলস বা সফটওয়্যার ক্লোন করে ব্যবহার করতে পারবেন।

এটি একটি ডেবিয়ান ভিত্তিক গ্নু/লিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশন, যা ডিজাইন করা হয়েছে আধুনিক ফরেনসিক এবং অনুপ্রবেশ মূল্যায়নের জন্য। মজার ব্যাপার হচ্ছে কালি লিনাক্সে প্রচুর পরিমাণে হ্যাকিং টুলস পূর্ব থেকেই সরাসরি ইন্সটল করাই থাকে।

হ্যাকিং এর জন্য উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমকে ব্যবহার করা গেলেও, সেখানে অনেক বিধি নিষেধের জন্য পুরোপুরি ভাবে ব্যবহার করা যায় না। অন্যথায় উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের জন্য যথেষ্ট পরিমাণে হ্যাকিং টুলসও নেই।

এছারাও, অনলাইন জগত থেকে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম নিজেকে পুরোপুরি ভাবে লুকিয়ে রাখতে পারে না। কিছুটা দুর্বলতা রয়েই যায়। অন্যদিকে লিনাক্সের ক্ষেত্রে কোন দুর্বলতা থাকে না। উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম থেকে কোন ওয়েব সাইটে হ্যাকিং পরিচালনা করলে, একজন সাইবার এক্সপার্ট আপনাকে ঠিক খুঁজে বের করতে সমর্থ হবে। কিন্তু একই কাজ লিনাক্স থেকে করলে কোন সাইবার এক্সপার্ট এর পক্ষেই সম্ভব নয় আপনাকে খুঁজে বের করা। কাজেই, অনলাইন থেকে নিরাপত্তার জন্যই আমাদেরকে হ্যাকিং পরিচালনার ক্ষেত্রে কালি লিনাক্স ব্যবহারের কোন বিকল্প নেই।